সাইবার অপরাধের শিকার হেলেনা জাহাঙ্গীর

মেহেদী হাসান স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।
  • আপডেট টাইম : জুলাই ১৮ ২০২০, ১৬:২৮
  • 784 বার পঠিত
সাইবার অপরাধের শিকার হেলেনা জাহাঙ্গীর

দেশের বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা, জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন, জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক এবং কমার্শিয়াল ইমপোরটেন্ট পারসন (সিআইপি) হেলেনা জাহাঙ্গীরের নামে একাধিক ভূয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতিনিয়ত আপত্তিকর ষ্টেটাস, আপত্তিকর এডিট করা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোষ্ট করা হচ্ছে। যার জন্য তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। কারন এই আইডিগুলো থেকে বিভিন্ন ধরনের অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।
তিনি প্রতিবার বন্যার সময় নিজ অর্থায়নে বানভাসি মানুষের জন্য খাদ্য সমাগ্রী কার্গো ট্রাকে করে নিয়ে সেই এলাকা থেকে আবার নৌকা যোগে নিজ হাতে বানভাসি মানুষের মাঝে বিতরন করেন। যা সিরাজগঞ্জ, শেরপুর ও কুমিল্লাবাসী দেশের সকল বানভসিরা অকপটে স্বিকার করবেন। প্রতিবার শীতের সময় শিতার্থ মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন সহ খাদ্য সামগ্রী বিতরন করে।
করোনাকালীনে প্রতিনিয়ত নিজের জীবনের মায়া না করে রাজধানীতে স্বাস্থ্য সূরক্ষা, খাদ্য সামগ্রী অসহায় ও দূস্থ্যদের মাঝে বিতরন করছেন। করোনাকালীনে সরকারের সুবিধা নেওয়া অনেক মিডিয়া যখন অপপ্রচারে লিপ্ত তখন হেলেনা জাহাঙ্গীর নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং তার নির্দেশনায় রাত-দিন ২৪ ঘন্টা জয়যাত্রা টেলিভিশন দেশের সার্বিক চিত্র তুলে ধরায় কিছু কুচক্র মহল অপপ্রচারের মাধ্যমে দেশকে অশান্ত করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। হেলেনা জাহাঙ্গীরের নামে একাধিক ফেক আইডি খুলে বিতর্কিত পোষ্ট করে তার দায়ভার হেলেনা জাহাঙ্গীরের উপর চাপিয়ে এই প্রতিষ্ঠিত ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক সম্মানীত ব্যাক্তিকে হেয় প্রতিপন্ন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে একটি কু-চক্রী মহল।
প্রযুক্তির ছোঁয়ায় ইন্টারনেট এখন সবার হাতের নাগালে। যার সুবাদে খুবই জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসাবে ফেইসবুক এর ব্যবহার বেড়েই চলছে। আবার এই ফেইসবুক অপব্যবহার করে অপরাধও সংগঠিত হচ্ছে। বিভিন্ন বিষয়ে অপপ্রচার, গুজব রটানে, আপত্তিকর মানহানিকর, আক্রমণের উদ্যেশে ছবি এডিট করে পোস্ট শেয়ার করাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক স্বার্থে ফেইসবুক এর অপব্যবহার হচ্ছে। যা সুস্পষ্টত সাইবার অপরাধ। অনেকেই কিন্তু জানেন না ফেইসবুক এর সঠিক ব্যবহার। অজানা বশত কিংবা কি করা বৈধ বা কি কি করলে অবৈধ হয় সেটা না জানার কারনে সাইবার অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে মনের অজান্তে।
ফেইসবুক ব্যবহারে সাবধানতা সতর্কতা থাকার কোনো বিকল্প নেই। একটু ভুলের কারণে আসামী হতে পারেন সাইবার অপরাধের অভিযোগে। সাইবার অপরাধীর বিচারে দেশে কঠিন আইন রয়েছে। জেনে বা না জেনে, যদি কেউ ফেইসবুক ব্যবহার করতে গিয়ে কোনো অপরাধ করে তাহলে এর জন্য ভোগ করতে হবে কঠিন শাস্তি। এবং মামলাও হচ্ছে। মূলত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন, ২০০৬ (সংশোধিত ২০১৩) অনুসরণ করা হয় সাইবার ক্রাইমের সম্পর্কিত অপরাধের জন্য। ইতি মধ্যে এই সব ভূয়া আইডির নামে দেশের বিভিন্ন জেলায় মামলা করছেন জয়যাত্রা টেলিভিশনের প্রতিনিধিবৃন্দ। তাই আমি দেশের একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হেলেনা জাহাঙ্গীরের নামে ভূয়া ফেসবুক আইডি খুলে এই ধরনের হীন মানষিকতা ও জঘন্য কাজের জন্য জয়যাত্রা টেলিভিশন পরিবারের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছেনারী উদ্যোক্তা, জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক হেলেনা জাহাঙ্গীরের নামে একাধিক ভূয়া ফেসবুক অ্যাকউন্ট খোলা হয়েছে। যার জন্য তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। কারন এই আইডিগুলো থেকে বিভিন্ন ধরনের অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

করোনাকালীন সময়ে সরকারের সুবিধা নেওয়া অনেক মিডিয়া যখন অপপ্রচারে লিপ্ত তখন হেলেনা জাহাঙ্গীর নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং তার নির্দেশনায় রাত-দিন ২৪ ঘন্টা জয়যাত্রা টেলিভিশন দেশের সার্বিক চিত্র তুলে ধরায় জামায়াত বিএনপি’র অপপ্রচারের মাধ্যমে দেশকে অশান্ত করার পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ার কারনে জামায়াত বিএনপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটের টার্গেটে পরিণত হয়েছেন হেলেনা জাহাঙ্গীর।
এমনটি মনে করছেন সচেতন সমাজ। হেলেনা জাহাঙ্গীরের নামে একাধিক ফেক আইডি খুলে বিতর্কিত পোষ্ট করে তার দায়ভার হেলেনা জাহাঙ্গীরের উপর চাপিয়ে এই প্রতিষ্ঠিত ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক সম্মানীত ব্যাক্তিকে হেয় প্রতিপন্ন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে একটি কু-চক্রী মহল।

করেন
সম্প্রতি হেলেনা জাহাঙ্গীর তার নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস “ষড়যন্ত্রের মুল হোতাকে বের করার দায়িত্ব প্রশাসনের। একটা ফেইক আইডি দিয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে,সেটা স্কিন সর্ট মেরে ভাইরাল করার পিছনে কাদের হাত এটা বের করার সাইবার ক্রাইমের দায়িত্ব। ৩ জুলাই সাইবার ক্রাইম খুঁজলেই পাবে আমার কি কি পোষ্ট ছিল।
যে কাজ করে তার বদনাম আছে। যে কাজ করে না তার বদনাম নাই। হাজার সমালোচনা করুক কোন লাভ নাই।”

Please follow and like us:
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

বিজ্ঞাপন