নাঙ্গলকোটে মাদ্রাসা ছাত্র কর্তৃক ৮ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার

দিগন্ত বাংলা টিভি ডেস্ক-
  • আপডেট টাইম : জুন ০৮ ২০২০, ১৩:৪৯
  • 820 বার পঠিত
নাঙ্গলকোটে মাদ্রাসা ছাত্র কর্তৃক ৮ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ৮ বছর বয়সী এক শিশু মাদ্রাসা পড়ুয়া আপন জেঠাতো ভাই কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। অভিযুক্ত ওই ধর্ষকের নাম আশরাফুল ইসলাম মাহিন (১৯)। সে উপজেলার দৌলখাঁড় ইউনিয়নের কেকৈয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী আলা উদ্দিনের একমাত্র ছেলে এবং জোড্ডা মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর ছাত্র। এ ঘটনায় রবিবার শিশুটির পরিবার থানায় গেলেও অদৃশ্য কারণে মামলা না নিয়ে তাদেরকে সোমবার (আজ) থানায় যেতে বলে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ। ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিত ওই শিশু (৮) তার অসুস্থ দাদির কাছে ঘুমাতো। এ সুযোগে আপন জেঠাতো ভাই মাহিন মুখ চেপেধরে একাধিকবার ওই শিশুটিকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে, ধর্ষকের মা কাজল বেগমের মামা নাঙ্গলকোট বেগম জামিলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক গোলাম সারোয়ার বিএসসি ও ধর্ষকের ফুফু হাসিনা বেগমসহ অন্যান্য আত্বীয়-স্বজনরা বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে এবং ভিকটিম ও তার মাকে থানায় মামলা না দিতে চাপ প্রয়োগ করছে। এদিকে ধর্ষকের পিতা ও ফুফুর এ ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক একাধিক অডিও ক্লিপ প্রতিবেদকের হাতে রয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষকের মা কাজল বেগমের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। প্রতিবারই একটি মেয়ে কল রিসিভ করে তার মা বাড়িতে নেই বলে জানায়। এ ঘটনায় মুঠোফোনে সাংবাদিক পরিচয়ে ‘থানায় কোন মামলা হয়েছে কিনা’ জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন- কিসের তথ্য, কি অভিযোগ, কিসের মামলা? তথ্য লাগলে আপনি থানায় আসেন, তথ্য দিবো। তবে, রবিবার সন্ধ্যায় ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী এ বিষয়ে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ের প্রচার সম্পাদক খন্দকার আলমগীর হোসাইনকে জানিয়েছেন- ধর্ষিত শিশুর পরিবার থানায় এসেছে। আমরা তাদেরকে সোমবার (আজ) আসতে বলেছি। আসলে মামলা নিবো।
Please follow and like us:
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

বিজ্ঞাপন