ঝাউডাঙ্গায় তৃতীয় লিঙ্গের এক নারীর আত্মহত্যা।

মেহেদী হাসান স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।
  • আপডেট টাইম : এপ্রিল ২৪ ২০২০, ১৫:৪৭
  • 917 বার পঠিত
ঝাউডাঙ্গায় তৃতীয় লিঙ্গের এক নারীর আত্মহত্যা।

মাসুদ রানা মিঠুঃ- সাতক্ষীরায় জয়া নামের এক হিজড়া ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় সাতক্ষীরা সদরের ঝাউডাঙ্গায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করেছে জয়া খাতুন (৩৫) নামের এক বৃহন্নলা ( তৃতীয় লিঙ্গ) । বিভিন্ন নামে সে পরিচিত ছিলো এলাকায়। কখনো জয়া, কখনো আবার মৌসুমী। আবার অনেকে ডাকতো কিউটগার্ল। সে ঝাউডাঙ্গা হাজিপুর কাঠের ব্রীজের পাশে আব্দুস সামাদের বাড়িতে ভাড়া থাকতো। তার গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার গাউছিয়ায়।
বাড়ির মালিক আব্দুস সামাদ বলেন, জয়ার খোঁজে বাড়িতে আসে কয়েকজন। তাদের ডাকাডাকিতে জয়ার সাড়া না পাওয়ায় আমার স্ত্রী শিরিনা খাতুন তাকে ডাকতে যেয়ে জানালা দিয়ে জয়াকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে। খবর পেয়ে জয়ার আত্বীয় (পাতানো) ভাই তারেক রহমান এসে লোহার গ্রীল বেঁকিয়ে তাকে উদ্ধার করে। প্রতিদিনের মত সকালে বাজার কালেকশন করে বাড়িতে এসে কাপড় পরিস্কার করেছিলো। তার পরে শুনি আত্নহত্যার কথা।
ইউপি সদস্য রুহুল আমিন জানান, কারোর সাথে জয়া খাতুনের গন্ডগল, ফ্যাসাদ শুনিনি, দেখিনি। কি কারনে আত্মহত্যা করেছে এই মুহুর্তে বলা যাবে না। তবে সদর থানা অফিসার ইনচার্জ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন বিষয়টি তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাবে না। লাশটি ময়না তদন্তের পর এবং অনুসন্ধানের মাধ্যমে রহস্য জানা যাবে।

এলাকাবাসী বলেন, কি কারনে সে আত্নহত্যা করেছে এটা কেউ বলতে পারছে না।এটা নিয়ে রহস্য তৈরী হয়েছে জনমনে। তবে জয়া খাতুনের ব্যবহৃত মোবাইলের কল রেকর্ডিং বের করলে ঘটনার আসল রহস্য জানা যাবে।

Please follow and like us:
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

বিজ্ঞাপন