প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ!

মেহেদী হাসান স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।
  • আপডেট টাইম : এপ্রিল ২০ ২০২০, ১৮:৪০
  • 858 বার পঠিত
প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ!

ঢাকা থেকে প্রকাশিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোর এর গত ১৯/০৪/২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখের পত্রিকার “চট্টগ্রামে ত্রান নিয়ে বিক্ষোভের নেপথ্যে যারা” শিরোনামে প্রকাশিত খবরে আমি মনোয়ার উল আলম চৌধুরীর যে সম্পৃক্ততা দেখানো হয়েছে- তা সম্পূর্ন উদ্দেশ্যপ্রনোদিত, ভিত্তিহীন, অবাস্তব ও কল্পনাপ্রসূত। আমি মনে করি, আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিপ্রায়ে এবং আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টায় লিপ্ত এমন কারো দ্বারা প্ররোচিত হয়ে এ ধরণের একটা সংবাদ পরিবেশনের অপপ্রয়াস চালানো হয়েছে। বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোরের মত একটি জনপ্রিয় পত্রিকা কোন রকম যাচাই-বাছাই ও সঠিক তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা ব্যতিরেকে এমন একটি মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করেছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। এ ধরণের সংবাদ প্রকাশের পূর্বে আমার পারিবারিক, রাজনৈতিক, সামাজিক এবং অর্থনৈতিক অবস্থান সম্পর্কে ভালভাবে খোঁজ নেয়া উচিৎ ছিল।

এ প্রসংগে উল্লেখ্য,আমি মনোয়ার উল আলম চৌধুরী একজন মুজিব আদর্শের পরিক্ষীত সৈনিক এবং তিনি ১৯৯৪ সাল থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। ওমরগণি এমইএস কলেজ ছাত্র সংসদে ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে তিন তিনবার তিনি বিভিন্ন পদে নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ত্ব পালন করেছেন, ১৯৯৬ সালের আন্দোলনসহ ২০০৭ সালে বিএনপি-জামায়াতের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছেন। এছাড়া, বিভিন্ন সময়ে যেমনঃ হেফাজতে ইসলামের তান্ডবসহ যুদ্ধাপরাধী রায় কার্যকরকালে বিএনপি ও জামায়েত-শিবিরের পেট্রোল বোমা, নৈরাজ্য ও তান্ডব ঠেকাতে রাজপথে থেকে দলের বিভিন্ন প্রয়োজনে তিনি মুজিব আদর্শের একজন পরিক্ষীত সৈনিক হিসেবে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম ১০ নং ওয়ার্ড চসিক নির্বাচনে নাগরিক সমাজের মনোনীত হয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন।

আরো উল্লেখ্য, জনাব মনোয়ার উল আলম চৌধুরী উত্তর কাট্টলীর ঐতিহ্যবাহী নাজির বাড়ীর বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক, রাজনীতিবিদ, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক মরহুম বদিউল আলম চৌধুরীর সন্তান- যিনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাংগালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির জনক বংগবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং হোসেন শহীদ সোহরোওয়ার্দীর সাথে যুক্তফ্রন্টের রাজনীতি করেছেন। জনাব মনোয়ার উল আলম চৌধুরী এমন এক ব্যক্তির সন্তান যিনি বাংলাদেশের প্রতিটি জাতীয় আন্দোলন ও সংগ্রামে দেশ ও জাতির জন্যে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছেন। তাঁর আব্বা মরহুম বদিউল আলম চৌধুরী ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছেন। আর সে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ‘ভাষা আন্দোলনের গবেষনা কেন্দ্র ও যাদুঘর’ ঢাকা হতে প্রকাশিত ‘ভাষা সংগ্রামের স্মৃতি’ বইটিতে জাতির জনক বংগবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’সহ যে ১৩৭ জন ভাষাসৈনিকের তালিকা রয়েছে- সে তালিকায় মরহুম বদিউল আলম চৌধুরী নামও স্থান পেয়েছে। এছাড়া, ১৯৫৪ সালে চট্টগ্রামে যুক্তফ্রন্টের ঐতিহাসিক বিজয়ে মরহুম বদিউল আলম চৌধুরীর অবদান, মুক্তিযুদ্ধের প্রাক্কালে রাজশাহীতে ডাঃ শামসুজ্জোহা নিহত হওয়ার পর চট্টগ্রাম হতে যে বিশাল গণমিছিল বের হয় সেটিতে মরহুম বদিউল আলম চৌধুরীর নেতৃত্ব দান, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যাহার ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল রাজবন্দীদের মুক্তির দাবীতে তাঁর সোচ্চার আন্দোলন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদানের সকল রেকর্ড সে সময়ের স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকসমূহে প্রকাশিত হয়েছে। মরহুম বদিউল আলম চৌধুরী যতদিন বেঁচে ছিলেন কাট্টলী অঞ্চলের সার্বিক কল্যাণ সাধন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবার প্রসার, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সম্প্রসারণ, খেলাধুলার পরিবেশ সংরক্ষণসহ নানাবিধ উন্নয়নমূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত থেকে এ অঞ্চলে সবার কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন।

উল্লেখ্য, বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোর অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত বর্ণিত খবরে যে তথ্য প্রদান করা হয়েছে- তাতে আমি রীতিমত বিস্মিত। কেননা, এর সাথে আমি কোনভাবেই জড়িত নই। এ ধরণের একটি নিউজ করার আগে অনলাইন বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোর এর প্রতিবেদকের উচিত ছিল আমার সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি ভেরিফাই করা। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, অনলাইন বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোর এর কোন প্রতিবেদক আমার সাথে এ বিষয়ে যোগাযোগ করেননি। কোন ধরনের তথ্য-উপাত্ত ছাড়া একজন সংবাদ কর্মী এ ধরণের মনগড়া নিউজ করে পারিবারিক, রাজনৈতিক, সামাজিক এবং অর্থনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত একজন সম্মানিত ব্যক্তির সম্মান হানি করেছে। পাশাপাশি এ ধরণের একটি অনৈতিক, অসত্য ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সাংবাদিকতার মত একটি মহৎ পেশাকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে।

তাই প্রকাশিত এ অনৈতিক, অসত্য ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত নিউজের বিরুদ্ধে আমি তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রকাশিত এ সংবাদের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি। অন্যথায়, বাংলানিউজ টুয়েন্টি ফোর অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ধন্যবাদান্তে:
মনোয়ার উল আলম চৌধুরী নোবেল।
০১৭৫০০৫১৪১৪

Please follow and like us:
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

বিজ্ঞাপন