দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে উপনীত হয়েছে

Ashraful Islam
  • আপডেট টাইম : নভেম্বর ০১ ২০১৯, ২১:০১
  • 926 বার পঠিত
দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে উপনীত হয়েছে

দিগন্ত বাংলা ডেস্ক– গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম বলেছেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে উপনীত হয়েছে। এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই। কারণ দেশে যত উন্নয়ন হয়েছে তা তার হাত ধরেই হয়েছে। সারাবিশ্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন নন্দিত নেতা।

গতকাল দুপুরে উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের কাইলানী বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চারতলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, অতিসম্প্রতি তিনি বিশাল পরিমাণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করেছেন। শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করেছেন। শিক্ষার্থীরা বিনাবেতনে লেখাপড়া করছে, বিনামূল্যে বই পাচ্ছে। বিদ্যালয়ে তাদের দুপুরের খাবারেরও ব্যবস্থা হচ্ছে।

পিরোজপুরবাসীর উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ইতিমধ্যে পিরোজপুরে দৃশ্যমান অনেক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। অনেক উন্নয়ন প্রকল্প প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য মেগাপ্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। সরকারি খরচে এখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে। আপনারা আমাকে সহায়তা করুন। আপনারা পাশে থাকলে অনুন্নত পিরোজপুর সদর-নাজিরপুর-নেছাড়াবাদ (স্বরুপকাঠী) উপজেলাকে মডেল উপজেলায় পরিণত করা হবে।

তিনি বলেন, আজকে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ। বেকুটিয়া ফেরিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হতো। বেকুটিয়া ব্রিজের ৪০ ভাগ নির্মাণ কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। কলাখালী থেকে ব্রিজ হবে। ইন্দুরহাট, স্বরুপকাঠী, কলারদোয়ানিয়ায় ব্রিজ হবে। স্বরুপকাঠী থেকে টুঙ্গিপাড়া পর্যন্ত চারলেনের রাস্তা হচ্ছে। পিরোজপুর-১ আসন হবে বাংলাদেশের উন্নত ও সমৃদ্ধ জনপদের একটি দৃষ্টান্ত। কোনো জায়গায় ভাঙা রাস্তা, ভাঙা স্কুল, ভাঙা কলেজ থাকবে না। বিপন্ন মসজিদ থাকবে না, বিপন্ন মন্দির থাকবে না।

এ সময় তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, শিক্ষার্থীদের শুধুমাত্র পুঁথিগত শিক্ষায় শিক্ষিত করলেই হবে না। তাদের নৈতিকতা ও মূল্যবোধের শিক্ষা দিতে হবে। মদ, ইয়াবা, গাঁজা থেকে কিভাবে দূরে থাকতে হবে এটা তাদের শিখাতে হবে। টাকার অভাবে কোনো শিক্ষার্থীর লেখা-পড়া বন্ধ না হয়ে যায়। সেটা আপনারা আমাকে জানাবেন। প্রয়োজনে আমি ব্যক্তিগতভাবে ওই শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়াবো।

মন্ত্রী আরো বলেন, পিরোজপুরের বর্তমান পুলিশ সুপার এখানে যোগদান করার পর ইতিমধ্যে তিনি মাদকের বড় বড় কয়েকটি চালান ধরেছেন। ওই সব মাদক ব্যবসায়ীদের গডফাদার, গডমাদার বা পৃষ্ঠপোষক কারা সেটাও এখন দেখার সময় এসেছে। কারা তাদের টাকার যোগান দিয়েছে। কেন একজন শিক্ষক স্কুলে না গিয়ে ফেনসিডিলের ব্যবসা করেছে। কার গাড়িতে করে সে ঘুরে বেড়াতো। সেটাও এখন দেখার সময় এসেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোজী আকতারের সভাপতিতে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার প্রমুখ।

Please follow and like us:
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

বিজ্ঞাপন